| |

শেরপুর জেলা পরিষদ নির্বাচনে জয়ী হলেন যারা

প্রকাশঃ ডিসেম্বর ২৮, ২০১৬ | ৬:৫০ অপরাহ্ণ

loading...

শেরপুরে জেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী মোটর সাইকেল প্রতিকের প্রার্থী হুমায়ুন কবীর রুমান বিপুল ভোটের ব্যাবধানে নির্বাচিত হয়েছেন ।

তার প্রাপ্ত ভোট ৫৬৩ টি অন্যদিকে তার নিকটতম আওয়ামীলীগ সর্মথিত আনারস প্রতিকের প্রার্থী এডভোকেট চন্দন কুমার পাল পেয়েছেন ১৭৬ টি ভোট ।

আজ বিকালে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে অবস্থিত নির্বাচন নিয়ন্ত্রন কক্ষ থেকে জেলা প্রশাসক ও রির্টানিং কর্মকর্তা ডা: এ এম পারভেজ রহিম বেসরকারীভাবে এ ফলাফল ঘোষণা করেন।

জেলার ১৫ টি কেন্দ্রের মধ্যে শেরপুর সদরে অবস্থিত সাহাব্দীরচর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মোটরসাইকেল প্রতিক ভোট পায় ৪৩ টি অন্যদিকে আনারস প্রতিক ভোট পায় ১০ টি । শেরপুর সরকারী ভিক্টোরিয়া একাডেমীতে মোটরসাইকেল প্রতিক ভোট পায় ৩৩ টি অন্যদিকে আনারস প্রতিক ভোট পায় ২১টি । ভীমগঞ্জ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মোটরসাইকেল প্রতিক ভোট পায় ৩৮ টি অন্যদিকে আনারস প্রতিক ভোট পায় ১৩ টি । গাজীরখামার সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মোটরসাইকেল প্রতিক ভোট পায় ২৭ টি অন্যদিকে আনারস প্রতিক ভোট পায় ১২ টি ।

ঝিনাইগাতী উপজেলায় মালিঝিকান্দা উচ্চ বিদ্যালয়ে মোটরসাইকেল প্রতিক ভোট পায় ৩৫ টি অন্যদিকে আনারস প্রতিক ভোট পায় ০৪ টি । ঝিনাইগাতী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে মোটরসাইকেল প্রতিক ভোট পায় ৪৪ টি অন্যদিকে আনারস প্রতিক ভোট পায় ১১ টি ।

নালিতাবাড়ী উপজেলায় অবস্থিত বরুয়াজানী হাসান উচ্চবিদ্যালয়ে মোটরসাইকেল প্রতিক ভোট পায় ৪৬ টি অন্যদিকে আনারস প্রতিক ভোট পায় ১৭টি । মধ্য নালিতাবাড়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে মোটরসাইকেল প্রতিক ভোট পায় ৪১ টি অন্যদিকে আনারস প্রতিক ভোট পায় ১২ টি । গড়কান্দা মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মোটরসাইকেল প্রতিক ভোট পায় ৪১ টি অন্যদিকে আনারস প্রতিক ভোট পায় ১৩ টি ।

নকলা উপজেলায় ধনাকুশা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মোটরসাইকেল প্রতিক ভোট পায় ৪৪ টি অন্যদিকে আনারস প্রতিক ভোট পায় ১০ টি । জানকিপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মোটরসাইকেল প্রতিক ভোট পায় ৩৩ টি অন্যদিকে আনারস প্রতিক ভোট পায় ০৬ টি । পূর্ব টালকী বালিকা দাখিল মাদ্রাসায় মোটরসাইকেল প্রতিক ভোট পায় ২৫ টি অন্যদিকে আনারস প্রতিক ভোট পায় ১৫ টি ।

শ্রীবরদী উপজেলায় অবস্থিত ভারেরা উচ্চ বিদ্যালয়ে মোটরসাইকেল প্রতিক ভোট পায় ৪২টি অন্যদিকে আনারস প্রতিক ভোট পায় ১২ টি । হালগড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মোটরসাইকেল প্রতিক ভোট পায় ২৬ টি অন্যদিকে আনারস প্রতিক ভোট পায় ১৪ টি । গবরীকুড়া এ কে উচ্চ বিদ্যালয়ে মোটরসাইকেল প্রতিক ভোট পায় ৪৫ টি অন্যদিকে আনারস প্রতিক ভোট পায় ০৬ টি ।

উল্লেখ্য যে স্বাধীনতার পর এ প্রথম শেরপুরে নির্বাচিত জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হলেন হুমায়ন কবীর রুমান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

loading...
loading...