| |

রাজনীতির হাতেখড়ি এবং প্রশিক্ষণের স্থান হলো ছাত্রলীগ : সৈয়দ আশরাফ

প্রকাশঃ জানুয়ারি ০৭, ২০১৭ | ৭:০৫ অপরাহ্ণ

loading...

উবায়দুল হকঃঃ

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ও জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন, রাজনীতির হাতেখড়ি এবং প্রশিক্ষণের স্থান হলো ছাত্রলীগ। জাতীয় নেতা তৈরির কারিগর হচ্ছে ছাত্রলীগ।

 

তিনি বলেন, ছাত্রলীগ এমন একটি প্রতিষ্ঠান যা দিনের পর দিন জাতীয় নেতৃত্ব সৃষ্টি করেছে এই বাংলাদেশে। মুক্তিযুদ্ধ থেকে শুরু করে স্বৈরাচারী আন্দোলন, গণতন্ত্র রাষ্ট্র ব্যবস্থা বিনির্মাণসহ এমন কোন আন্দোলন সংগ্রাম নেই যেখানে ছাত্রলীগই সবসময় সবথেকে বেশি অগ্রপথিক হিসেবে কাজ করেছে।

 

শনিবার বিকেলে নগরীর রেলওয়ের কৃষ্ণচূড়া চত্বরে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৬৯ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগ আয়োজিত ছাত্র সমাবেশ ও পূর্ণমিলনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

 

উপস্থিত ছাত্রলীগের কর্মীদের উদ্দেশ্যে সৈয়দ আশরাফ বলেন, আপনারাই আগামী দিনের নেতা, আগামী দিনের কান্ডারী। আমাদের সময় ফুরিয়ে যাচ্ছে, আপনাদের সময় শুরু হচ্ছে। আপনারাই একসময় এই জেলার সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, মেয়র, এমপি, মন্ত্রী হবেন। জাতীয় রাজনীতিতে উপস্থিত হয়ে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কান্ডারী হয়ে দেশটাকে পরিচালনা করবেন আপনারাই।

loading...

 

বিকেল ৩টায় রেলওয়ের কৃষ্ণচূড়া চত্বরে সমাবেশের উদ্বোধন করে ধর্মমন্ত্রী ও ময়মনসিংহ জেলা আলীগের সাবেক সভাপতি বীর মুক্তযোদ্ধা আলহাজ্ব অধ্যক্ষ মতিউর রহমান।

 

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রকিবুল ইসলাম রকিবের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সরকার মো. সব্যসাচীর সঞ্চালনায় সমাবেশে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন স্বাধীনতা পরবর্তি ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগের প্রথম সভাপতি ও ময়মনসিংহ-৩ (গৌরীপুর) আসনের সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন আহমেদ।

 

সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট জহিরুল হক খোকা, সাধারণ সম্পাদক মেয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, মহানগর আলীগের সভাপতি এহতেশামুল আলম, সাধারণ সম্পাদক মোহীত উর রহমান শান্ত, সংসদ সদস্য ফাহমি গোলন্দাস বাবেল, আনোয়ারুল আবেদিন খান তুহিন, অধ্যাপক ডা. এম আমানউল্লাহ, শরীফ আহমেদ, নবনির্বাচিত জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ইউসুফ খান পাঠান ও ময়মনসিংহ পৌর মেয়র ও আলীগ নেতা মো. ইকরামুল হক টিটু।

 

সমাবেশে ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগের ১৯৭২ সাল থেকে সর্বশেষ কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের বিশেষ সম্মাননা স্মারণ তুলে দেন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক।

 

এর আগে, দুপুরে ময়মনসিংহ নগরীর ঐতিহ্যবাহী আনন্দ মোহন কলেজের ইতিহাস বিভাগে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একাস্ত সহচর বাংলাদেশের প্রথম এবং সাবেক উপ-রাষ্ট্রপতি শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলামের ব্যবহৃত চেয়ারটি সংরক্ষণের লক্ষ্যে স্মৃতিফলক উন্মোচন ও শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলামের সহধর্মিণী বেগম নাফিসা ইসলাম এর নামে নবনির্মিত ছাত্রী নিবাসের উদ্বোধন করেন সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম।

loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

loading...
loading...